আজ শুক্রবার, , ২০ অক্টোবর ২০১৭ ইং

নিজস্ব প্রতিবেদক

১৩ অক্টোবর, ২০১৭ ০১:০৫

বত্রিশে ‘দর্পণ’

১৯৮৬ সালে স্বৈরাচারবিরোধী আন্দোলনের উত্তাল সময়ে জন্ম লাভ করে দর্পণ থিয়েটার। নানা চড়াই উৎরাই সত্ত্বেও যা ৩১ বছর পেরিয়ে ৩২ এ পা দিয়েছে। ৩২ বছরে পদার্পণ উপলক্ষে আজ (শুক্রবার) দিনব্যাপী উৎসবের আয়োজন করে দর্পণ থিয়েটার। ‘৩২-এ দর্পণ’ শিরোনামে এ উৎসব রিকাবীবাজারের কবি নজরুল অডিটোরিয়ামে শুরু হবে বেলা ৩ টায়।

একুশে পদকপ্রাপ্ত লোকসংগীত শিল্পী সুষমা দাশ সুষমা দাস এই উৎসবের উদ্বোধন করবেন। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন প্রবীণ বাউল আবদুর রহমান, সম্মিলিত নাট্য পরিষদ সিলেটের প্রধান পরিচালক অরিন্দম দত্ত চন্দন, সভাপতি মিশফাক আহমদ চৌধুরী মিশু, ও তাঁত উদ্যোক্তা নীলকমল বসাক।

আয়োজকরা জানান, উৎসবে আমন্ত্রিত দল হিসেবে নৃত্যশৈলী, ছন্দ নৃত্যালয় ও নগরনাট তাদের পরিবেশনা উপস্থাপন করবে।

৩২-এ পদার্পণ উপলক্ষে সম্মাননা প্রদান করা হবে- উত্তম সিংহ রতন, নিরঞ্জন দে যাদু, বিশ্বরূপ দে পিকলু, শাহ মন্তাজির আলী নজমুল ও নীলোৎপল ঘোষ খোকনকে।

দর্পণ থিয়েটারের সাথে সংশ্লিষ্টরা জানান, তিনটি দশক ধরে একটি পরিপূর্ণ থিয়েটার গ্রুপ হওয়ার তীব্র প্রচেষ্টা ছিল দর্পণ থিয়েটারের। ২৫/২৬ বছর আগে প্রায় সম্পূর্ণ অডিটোরিয়াম জুড়ে তৈরি করা মঞ্চ, অথবা সম্পূর্ণ নতুন ধারার শারীরিক কৌশলে কোরিওগ্রাফি-নির্ভর নাটক, আন্তর্জাতিক সমাজতন্ত্রের বিপ্লবের দৃপ্ত কাহিনীতে মেথডিক অভিনয়ের উৎকর্ষতা কিংবা বাংলাদেশে প্রথম মণিপুরি রূপকথা নিয়ে বিশাল কলেবরের নাটকে তলোয়ার যুদ্ধের শিহরণ-একটার পর একটা নাটক দর্শকদের সামনে নিয়ে আসে, তখন সারা দেশেই সিলেটের থিয়েটার আন্দোলনের প্রশংসা করে।  রাজনৈতিক সচেতনতা ও মুক্তিযুদ্ধের চেতনার প্রতি বিশ্বাস দর্পণ থিয়েটারের চিরকালের পরিচয়।

৩২-এ পদার্পণ উপলক্ষে আজ সন্ধ্যায় দর্পণ থিয়েটার মঞ্চস্থ করবে তাদের দর্শক নন্দিত নাট নাটক ‘হট্টমালার ওপারে’। এজাজ আলমের নির্দেশিত নাটকটি পুনর্নির্দেশনা দিয়েছেন নাহিদ পারভেজ বাবু ও সুপ্রিয় দেব শান্ত।

আপনার মন্তব্য

আলোচিত