আজ সোমবার, , ২৩ অক্টোবর ২০১৭ ইং

শাবি প্রতিনিধি

১৯ জুন, ২০১৭ ০১:৩৩

শাবিতে গাড়ি চালককে মারধর

শাহজালাল বিশ্ববিদ্যালয়ের আতাউর রহমান এক গাড়ি চালককে মারধর করা হয়েছে। বুধবার সকালে ওই বিশ্ববিদ্যালয়েরই চালক সমিতির সভাপতি জিলাল আহমেদ তাকে মারধর করেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।। আহত আতাউর রহমান বর্তমানে সিলেট এম.এ.জি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন।

এর আগে গত ১০ জুন বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান ফটকের কাছে উপাচার্য দপ্তরের অফিস সহকারী মাইন উদ্দিন কর্মচারী ইউনিয়নের সাবেক সভাপতি ছাদেক আহমদকে মারধর করেন।

প্রত্যক্ষদর্শী সূত্র জানায়, রবিবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে পরিবহণ প্রশাসক অধ্যাপক ড. জহির বিন আলমের ফোন পেয়ে ডিউটিতে আসেন চালক আতাউর রহমান। ক্যাম্পাসে আসলে বাস স্ট্যান্ডের কাছে নিয়ে আতাউরকে এলোপাতাড়ি কিল-ঘুষি ও লাথি দেন চালক সমিতির সভাপতি জিলাল। এসময় পেটে ও শরীরের বিভিন্ন স্থানে আঘাত পান আতাউর। একপর্যায়ে জিলালের ঘুষিতে ঠোঁট ফেটে রক্ত বের হয় আতাউরের। এসময় ঘটনাস্থলে উপস্থিত কয়েকজন আহত আতাউরকে ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যান। বর্তমানে তিনি হাসপাতালের চতুর্থ তলার ৫ নম্বর ওয়ার্ডে চিকিৎসাধীন আছেন।

অভিযুক্ত জিলালের সাথে  যোগাযোগ করা হলে তিনি অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, ‘আমি আতাউরকে মারধর করিনি, বরং সে আমার দিকে তেড়ে এসে মারধর করে।’

আহত আতাউরের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, বেশ কয়েকদিন আগে মদ্যপ অবস্থায় এক মহিলাকে জোর করে গাড়িতে তুলতে গেলে স্থানীয় লোকজন জিলালকে আটক করে। এ ঘটনায় গঠিত তদন্ত কমিটিতে আমাকে স্বাক্ষী মানলে জিলাল তার পক্ষে স্বাক্ষী দেয়ার জন্য আমাকে চাপ দেয়। কিন্তু রাজি না হওয়ায় আমার উপর উপর্যুপরি হামলা চালানো হয়।

এ ব্যাপারে পরিবহণ প্রশাসক অধ্যাপক জহির বিন আলম বলেন, নারী গঠিত একটি ঘটনার পূর্ব সূত্রতার জের ধরে আতাউরকে মারধর করা হয়েছে বলে জেনেছি।

শিক্ষক সমিতির সাধারণ সম্পাদক মুহিবুল আলম বলেন, বিচারহীনতার সংস্কৃতি  থেকে এরকম ঘটনা বারবার ঘটছে।  

আপনার মন্তব্য

আলোচিত