আজ শুক্রবার, , ২০ অক্টোবর ২০১৭ ইং

সোহেল আহমদ, এমসি কলেজ

০৯ অক্টোবর, ২০১৭ ১৫:২৮

এমসি কলেজ থেকে ক্যামব্রিজ বিশ্ববিদ্যালয়ে

এমসি কলেজ থেকে বিজ্ঞান বিভাগে সদ্য এইচএসসি পাস করা শিক্ষার্থী আসিফ-ই-এলাহী এখন ইংল্যান্ডের ক্যামব্রিজ বিশ্ববিদ্যালয়ের ‘পিওর ম্যাথম্যাটিকস’-এ স্নাতকের শিক্ষার্থী।

অথচ ২০১৭ সালের এইচএসি পরীক্ষায় এমসি কলেজ থেকে পাস করা ৩৩৭ শিক্ষার্থীর মধ্যে আসিফের নাম থাকলেও ছিল না ১৪৯ জিপিএ-৫ পাওয়া শিক্ষার্থীদের তালিকায়। ‘গণিত পাগল’ এ তরুণ মেধাবী গণিত ও আইসিটিতে এ-প্লাস পেলেও বাকি পাঁচ বিষয়েই পেয়েছে এ গ্রেড। সবমিলিয়ে ৫ পয়েন্টের মধ্যে অর্জন ৪.৬৭ পয়েন্ট।

এ বছরের স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস উদযাপন অনুষ্ঠানের পাশাপাশি কলেজ ও দেশ-বিদেশে অনুষ্ঠিত বিভিন্ন প্রতিযোগিতায় সাফল্য দেখানো কৃতি শিক্ষার্থীদের সংবর্ধনা দিয়েছিল এমসি কলেজ। ২০১৬ সালের আন্তর্জাতিক গণিত অলিম্পিয়াডে ব্রোঞ্জ পদক পাওয়ায় সংবর্ধনা দেওয়া হয় কৃতি শিক্ষার্থী আসিফ ই এলাহীকেও। কলেজ প্রশাসনের দেয়া ক্রেস্ট হাতে নিয়ে ছয় মাস আগে অডিটোরিয়ামে উপস্থিতিদের জানিয়েছিল নিজের সাফল্যের ধারাবাহিকতা রক্ষায় এমআইটি, ক্যামব্রিজের মতো প্রতিষ্ঠানে নিজেকে নিয়ে যাওয়ার। স্বপ্নের কথা বলা শিক্ষার্থী এখন সেই বিশ্ববিখ্যাত ক্যামব্রিজের শিক্ষার্থী।

আন্তর্জাতিক গণিত অলিম্পিয়াডে ২০০৫ সাল থেকে নিয়মিত অংশগ্রহণ করা বাংলাদেশি খুদে গণিতবিদদের মধ্যে হংকংয়ে অনুষ্ঠিত ৫৭তম অলিম্পিয়াডে দেশের হয়ে এখন পর্যন্ত সর্বোচ্চ ২৮ স্কোর ও ছয়টি সমস্যার মধ্যে সর্বাধিক চারটি সমস্যার সমাধান করার রেকর্ড রয়েছে আসিফ-ই-এলাহীর দখলে।

সদ্য এমসি কলেজ থেকে এইচএসসি পাস করা ক্যামব্রিজের এ শিক্ষার্থী ২০১৪ সালের দক্ষিণ আফ্রিকায় অনুষ্ঠিত হওয়া ৫৫ তম আইএমওতে প্রথমবারের মতো অংশগ্রহণ করে ৪২ এর মধ্যে ১৪ স্কোর করে 'অনারেবল ম্যানসন' অর্জন করে। ৫৬তম আইএমওতে ১৭ স্কোর করে ব্রোঞ্জ পদক অর্জন করে।

৫৭তম ও ৫৮ তম অলিম্পিয়াডে '১' নম্বরের জন্য স্বর্ণপদক হাতছাড়া হওয়া এ শিক্ষার্থী হংকংয়ে স্কোর করে ২৮ এবং এবারের ব্রাজিলে অনুষ্ঠিত অলিম্পিয়াডে ২৪ স্কোর করে রৌপ্যপদক অর্জন করে।

দেশে কিংবা বিদেশে এমসি কলেজের স্বপ্নবাজ মেধাবী তরুণদের সাফল্যে সবসময় উচ্ছ্বসিত কলেজের শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা। শিক্ষার্থীদের মেধার বিকাশ করতে প্রতিনিয়ত সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দেয়া কলেজ অধ্যক্ষ অধ্যাপক নিতাই চন্দ্র চন্দ ও উপাধ্যক্ষ অধ্যাপক হায়াতুল ইসলাম আকঞ্জি কলেজের শিক্ষার্থীরা তাদের সাফল্য অব্যাহত রাখবে বলে প্রত্যাশা ব্যক্ত করেন।

আপনার মন্তব্য

আলোচিত