আজ সোমবার, , ২০ নভেম্বর ২০১৭ ইং

বিনোদন ডেস্ক

১১ নভেম্বর, ২০১৭ ০১:৩৩

‘আমার বুকের দিকে তাকিয়ে ছিলেন পরিচালক’

হলিউড প্রযোজক হার্ভে ওয়েনস্টাইনের যৌন কুকীর্তি প্রকাশ্যে আসার পর থেকে বিভিন্ন সিনে ইন্ডাস্ট্রির মুখোশ খুলে পড়ছে। এই তালিকায় পিছিয়ে নেই বলিউডও। সম্প্রতি এ নিয়ে মুখ খুলেছেন বিদ্যা বালান।

নিজের যৌন হেনস্তার প্রসঙ্গে এই অভিনেত্রী জানান, এমন পরিস্থিতির শিকার তাকেও হতে হয়েছিল। সে সময় সিনেমা জগতে কেবল পা রেখেছেন। বাবাকে সঙ্গে নিয়ে একটা অডিশনে গিয়েছিলেন। সেখানে গিয়ে দেখেন, এক পরিচালক একটানা তার বুকের দিকে তাকিয়ে আছেন। স্বাভাবিকভাবেই এটা একজন মেয়ের কাছে চরম অস্বস্তিকর।

কিন্তু বিদ্যা চুপ করে থাকেননি। মুখের উপর জানতে চেয়েছিলেন, কী দেখছেন? তাতেই হকচকিয়ে যান ওই পরিচালক। এটা শুনে সিনেমা জগত সম্পর্কে নেতিবাচক ধারণার কারণে ভেঙে পড়তে পারেন ভেবে, সেদিন বাবাকে কিছুই জানাননি বিদ্যা। কিন্তু সেই ঘটনা আজও ভোলেননি এই নায়িকা।

এর আগে বলিউডের একাধিক অভিনেত্রী যখন যৌন হেনস্তা নিয়ে সরব হয়ে উঠেছিলেন, তখন বিদ্যা বলেছিলেন, এটা অনেকখানি নারীদের ওপর নির্ভর করে। এক সাক্ষাৎকারে বিষয়টি খোলসা করে বিদ্যা  জানান, নারীদের দোষ দিচ্ছেন না তিনি। কিন্তু এরকম ঘটনা ঘটলে কেউ যেন চুপ করে না থেকে প্রতিবাদ করেন- সে কথাই বলতে চেয়েছেন তিনি। এবার নিজের ঘটনার উদাহরণ টেনে বিদ্যা বুঝিয়ে দিলেন, এমন পরিস্থিতি কিভাবে মোকাবেলা  করতে হয়।

তিনি জানান, প্রতিটা ইন্ডাস্ট্রিতেই হার্ভে ওয়েনস্টাইনের মতো লোকজন আছেন। প্রত্যেক নারীরই সিক্সথ সেন্স আছে। তারা ঠিকই বুঝতে পারেন, কোনটা খারাপ ইঙ্গিত আর কোনটা নয়।

বিদ্যার কথা হলো রুটি-রুজির জন্য তিনি নিজের মর্যাদা খোয়াতে পারবেন না। কিন্তু কোনো নারী যখন কারও সঙ্গে কফি খেতে যাচ্ছেন, তখন নিশ্চয়ই তিনি চাইছেন বলেই যাচ্ছেন। এখন সেটা ভাল না খারাপ তা নিশ্চয়ই ওই নারী অনুভূতি দিয়ে বুঝতে পারেন। তিনি কমপ্রোমাইজ করবেন কি করবেন না সেটা একান্তই তার ব্যাপার। কিন্তু অস্বস্তি বোধ হলে গোড়াতেই রুখে দাঁড়ালে বা তা এড়িয়ে গেলে হেনস্তা হাত থেকে রক্ষা পাওয়া যাবে। সূত্র: হিন্দুস্তান টাইমস।

আপনার মন্তব্য

আলোচিত