আজ সোমবার, , ২১ আগস্ট ২০১৭ ইং

সিলেটটুডে অনলাইন ডেস্ক

২৭ জুলাই, ২০১৭ ১২:৫৫

পেইন্টের আর কোনো নতুন সংস্করণ বের করবে না মাইক্রোসফট!

মাইক্রোসফটের উইন্ডোজ ব্যবহারকারীদের মধ্যে এমন কাউকে খুঁজে পাওয়া দুষ্কর হবে, যে কিনা পেইন্ট সফটওয়্যারটি চেনে না। কত শত স্বপ্নের আঁকিবুঁকি হয়েছে এই পেইন্টে, তা বলা বাহুল্য। অনেক ডিজিটাল চিত্রশিল্পীর হাতেখড়িও যে এই পেইন্টে, তা-ও বলার অপেক্ষা রাখে না।

৩২ বছর পথচলার পর থামতে হচ্ছে উইন্ডোজ নির্মাতা প্রতিষ্ঠান মাইক্রোসফটের জনপ্রিয় অঙ্কনভিত্তিক সফটওয়্যার পেইন্টকে। মাইক্রোসফট এক বিজ্ঞপ্তিতে নিশ্চিত করেছে, আগামী উইন্ডোজ সংস্করণে আর ডিফল্টভাবে থাকছে না পেইন্ট। পেইন্টের আর কোনো নতুন সংস্করণও করবে না মাইক্রোসফট ডেভেলপাররা।

১৯৮৫ সালে উইন্ডোজের প্রথম সংস্করণের সঙ্গেই প্রথম এসেছিল মাইক্রোসফট বা এমএস পেইন্ট। পরবর্তী সময়ে জেডসফট কর্পোরেশনের তৈরি ‘পিসি পেইন্টব্রাশ’কে লাইসেন্স করিয়ে নেয় মাইক্রোসফট। শুরুর দিকে মাত্র এক বিটের মনোক্রোম গ্রাফিকস সমর্থন করত পেইন্টে। এ সফটওয়্যার ব্যবহার করে প্রথম জেপিইজি ধরনের ছবি সংরক্ষণের সুযোগ পায় উইন্ডোজ ৯৮ এর গ্রাহকেরা।

গত কয়েক দিন আগে মাইক্রোসফটের প্রকাশিত এক তালিকায় এই পেইন্ট অনুমোদন দেওয়া হয়নি। ফলে চলতি বছরের শেষ দিকে উইন্ডোজ ১০ ফল ক্রিয়েটরস হালনাগাদ থেকে বাতিল করা হতে পারে পেইন্ট এমন ধারণা ছড়িয়ে পড়েছে ব্যবহারকারীদের মাঝে।

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমগুলোতে এ খবর ছড়িয়ে পড়লে ক্ষোভ প্রকাশ শুরু করে পেইন্টের ভক্তরা। গত সোমবার মাইক্রোসফট তাই আবার ঘোষণা দেয়, পেইন্ট উইন্ডোজের নতুন সংস্করণে ডিফল্টভাবে থাকছে না ঠিকই, তবে পুরোপুরি বাতিলও করা হবে না। উইন্ডোজ অ্যাপ স্টোরে বিনা মূল্যে পাওয়া যাবে পেইন্ট। মাইক্রোসফট এই তথ্য নিশ্চিত করেছে বলে জানিয়েছে বিবিসি।

এ নিয়ে এক ব্লগ পোস্টে মাইক্রোসফটের মহাব্যবস্থাপক মেগান সনডার্স লিখেন, এমএস পেইন্ট থাকছে, শিগগিরই এটির একটি নতুন স্থান হবে, উইন্ডোজ স্টোরে এটি বিনা মূল্যে পাওয়া যাবে। গত বছর পেইন্টের নতুন সংস্করণ ‘পেইন্ট ৩ ডি’ উন্মোচন করেছিল মাইক্রোসফট। ত্রিমাত্রিক ছবি তৈরি করার পেইন্ট ৩ ডি’র বেশ কয়েকটি সুবিধা মাইক্রোসফট ফটোতে থাকতে পারে বলেও জানান সনডার্স।
সূত্র: বিবিসি, দ্য গার্ডিয়ান

আপনার মন্তব্য

আলোচিত