আজ বুধবার, , ১৮ অক্টোবর ২০১৭ ইং

সিলেটটুডে ডেস্ক

১৯ জুন, ২০১৭ ১৬:২০

‘আমি সব মুসলিমকে হত্যা করতে চাই’

একের পর এক হামলা ও বহুতল গ্রিনফেল টাওয়ারে অগ্নিকাণ্ডের পর আবারও হামলার শিকার হয়েছে লন্ডন। সম্প্রতি লন্ডন ব্রিজে গাড়িচাপা দিয়ে যেভাবে মানুষ মারার চেষ্টা করা হয়েছিল, এবারের ঘটনাও তেমন। তবে এবার হামলা হয়েছে শুধু মুসলিমদের ওপর। হামলায় গাড়িচাপায় নিহত হয়েছেন এক মুসল্লি।

রোববার (১৮ জুন) দিবাগত রাতে নামাজ আদায় শেষে মসজিদ থেকে বেরিয়ে আসা মুসল্লিদের ওপর গাড়ি তুলে দিয়ে হত্যার চেষ্টা করা হয়েছে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, গাড়ি থেকে নেমে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করার সময় হামলাকারী গাড়িচালক চিৎকার করে বলছিলো, "আমি সব মুসলিমকে হত্যা করতে চাই।"

রোববার রাতে উত্তর লন্ডনের ফিনসবারি পার্ক মসজিদের কাছে সেভেন সিস্টার্স রোডে দুটি মসজিদ থেকে বেরিয়ে আসা মুসল্লিদের ওপর গাড়ি উঠিয়ে দেয়ার চেষ্টা করে হামলাকারী ওই চালক। এ ঘটনায় একজন নিহত ও কমপক্ষে ১০ জন আহত হয়েছেন।

পুলিশ জানিয়েছে, এ ঘটনায় হতাহত সবাই মুসলিম। ৪৮ বছর বয়সি সন্দেহভাজন হামলাকারীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

হামলার প্রত্যক্ষদর্শী আবদুল রহমান বিবিসিকে বলেছেন, তিনি লোকটিকে (গাড়িচালক) আঘাত করেন এবং যাতে পালিয়ে যেতে না পারেন, সেজন্য অন্যদের সঙ্গে তাকে জাপটে ধরেন। যখন লোকটি তার ভ্যান গাড়ি থেকে নেমে এলেন, তখন তিনি পালিয়ে যেতে চাইছিলেন, দৌড় দেয়ার সময় বলছিলেন, "আমি সব মুসলিমকে হত্যা করতে চাই... আমি সব মুসলিমকে খুন করতে চাই।"

রহমান বলেন, "আমি তাকে পেটে আঘাত করি। তারপর আমি ও অন্যরা মিলে তাকে মাটির সঙ্গে চেপে ধরি, যাতে তিনি নড়াচড়া করতে না পারেন। পুলিশ আসা পর্যন্ত আমরা তাকে ধরে রাখি।"

মেট্রোপলিটন পুলিশের ডেপুটি সহকারী কমিশনার নিল বসু জানান, "সন্ত্রাসী হামলা তখনই শুরু হয়, যখন গাড়িচালক পথচারীদের ওপর দিয়ে গাড়ি উঠিয়ে দেয়। যারা আহত-নিহত হয়েছেন, তারা সবাই মুসলিম। আপাতত গাড়িচালক ছাড়া এ ঘটনার জন্য আর কোনো সন্দেহভাজন নেই।"

ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে হামলার প্রতিক্রিয়ায় বলেছেন, একে পুলিশ ‘সন্ত্রাসী ঘটনা’ হিসেবে দেখছে। এর তদন্ত ভার পড়েছে পুলিশের কাউন্টার টেররিজম ইউনিটের ওপর।

এ হামলার নিন্দা জানিয়েছেন বিরোধী নেতা করবিন ও লন্ডনের মেয়র সাদিক খান। সাদিক খান বলেছেন, রোজাদাররা যেন শঙ্কিত না হন, সে কথা ভেবে নিরাপত্তার জন্য অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

আটক হামলাকারীর নাম-পরিচয় এখনো প্রকাশ করেনি পুলিশ।

আপনার মন্তব্য

আলোচিত