আজ শুক্রবার, , ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৭ ইং

সিলেটটুডে অনলাইন ডেস্ক

২১ আগস্ট, ২০১৭ ১৩:৪৬

রোদের তাপ ও ক্ষতিকর রশ্মি থেকে ত্বক বাঁচায় কমলা

বাংলাদেশে অনেকদিন ধরেই কমলার খোসা দিয়ে রূপচর্চা চলে আসছে। আধুনিক যুগেও এই ফল ত্বকচর্চা ব্যবহার হচ্ছে। তবে ভালো ফলাফলের জন্য জানা চাই সঠিক পন্থা।

সারা বছরই রোদের তাপ ও ক্ষতিকর রশ্মি ত্বকের জন্য ক্ষতিকর। আর সূর্যের তাপের কারণে ট্যানিং বা রোদপোড়া-ভাব হওয়াও খুব স্বাভাবিক। কমলালেবুর ব্যবহারে সহজেই এই সমস্যা দূর করা সম্ভব।

ভারতের ‘দ্যা হিমালয়া ড্রাগ কোম্পানি’র প্রধান বিজ্ঞানি চদ্রিকা মহেদ্রা এবং ‘আল্পস বিউটি ক্লিনিক’য়ের পরিচালক ও রূপবিশেষজ্ঞ ভারতি তানেজা কমলালেবু দিয়ে ত্বকের যত্ন নেওয়ার কিছু পন্থা ও উপকারীতা সম্পর্কে জানান।

  •   রোদপোড়া-ভাব দূর করতে এক টেবিল-চামচ কমলার খোসাগুঁড়ার সঙ্গে এক চিমটি হলুদগুঁড়া, আধা চামচ চন্দনগুঁড়া এবং অল্প পরিমাণে মধু মিশিয়ে পেস্ট তৈরি করে ত্বকে লাগিয়ে রাখুন। পাঁচ মিনিট অপেক্ষা করে ভেজা হাতে আলতোভাবে মালিশ করে পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।

  •   কমলার রসে রয়েছে সিট্রিক অ্যাসিড যা প্রাকৃতিক ব্লিচিং উপাদান হিসেবে কাজ করে। তাই রোদপোড়া ত্বকের যত্নে এই রস বেশ কার্যকর। বরফ জমানোর ট্রে’তে তাজা কমলার রস রেখে ফ্রিজে রেখে দিন। রোদ থেকে ঘরে ফিরে ওই বরফ ত্বকে ঘষুন।

  •   বাড়তি ঝামেলা এড়াতে তাজা কমলার পাল্প বা নরম শাঁস ত্বকে আলতোভাবে মালিশ করুন। কিছুক্ষণ অপেক্ষা করে ধুয়ে ফেলুন। নিয়মিত ব্যবহারে ত্বকের পোড়াভাব দূর হবে।

  •   কমলার খোসাতেও রয়েছে প্রাকৃতিক ব্লিচিং উপাদান যা ত্বকের রং হালকা করতে সাহায্য করে। কমলার রস ও খোসা দিয়ে তৈরি মাস্ক ত্বকের স্বাভাবিক তেলের সামঞ্জস্যতা বজায় রাখার পাশাপাশি পরিষ্কার রাখে।

  •   কমলার খোসায় রয়েছে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট এবং ভিটামিন সি। এগুলো ত্বকের দাগ দূর করে প্রাকৃতিক পরিষ্কারক হিসেবে কাজ করে। কমলার খোসাগুঁড়ার সঙ্গে মধু ও পেঁপের রস মেশালে আরও ভালো ফলাফল পাওয়া যায়।

আপনার মন্তব্য

আলোচিত