আজ বুধবার, , ১৮ অক্টোবর ২০১৭ ইং

মৌলভীবাজার প্রতিনিধি

১৭ জুন, ২০১৭ ২০:০৬

রাজনগরে গৃহবধু খুন, শাশুড়ি-ননদসহ ৫ জন গ্রেপ্তার

মৌলভীবাজারের রাজনগরে পারিবারিক কলহের জের ধরে বাবলী আখতার (২৬) নামে এক গৃহবধু খুনের ঘটনায় শ্বশুরি, ঝা, ননদসহ ৫ জনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। শনিবার বিকালে তাদেরকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। আসামীদের ১০ দিনের রিমান্ডে আবেদন করেছে পুলিশ।

এঘটনায় গৃহবধুর দুলাভাই হারুন আহমদ বাদী হয়ে রাজনগর থানায় মামলা করেছেন। এদিকে শনিবার বিকালে ময়নাতদন্ত শেষে বাবলী আখতারের লাশ তার পিতারবাড়ি সদর উপজেলার মল্লিক সরাই গ্রামে দাফন করা হয়েছে।

মামলার এজহার সূত্রে জানা যায়, ২০১০ সালে মৌলভীবাজার সদর উপজেলার মল্লিকসরাই গ্রামের হাজি আয়াছ মিয়ার মেয়ে বাবলী আখতারের বিয়ে হয় রাজনগর উপজেলার মনসুরনগর ইউনিয়নের মনির মিয়ার ছেলে সৌদিআরব প্রবাসী সরুক মিয়ার সঙ্গে বিয়ে হয়। বিয়ের পর তাদের ঘরে ৫ বছরের ও ১১ মাসের দুটি পুত্রসন্তান জন্ম নেয়। গৃহবধুর স্বামী সুরুক মিয়া তার পরিবারের অজান্তে মৌলভীবাজারের সাউথইস্ট ব্যাংকে ও ইসলামি ব্যাংকে একক ও যৌথ একাউন্টে প্রায় ৩২ লাখ টাকা জমা রাখেন। বিষয়টি গৃহবধু বাবলী আখতারের ড্রয়ারের তালা ভেঙ্গে ননদ মিলন বেগম ব্যাংকের সব কাগজপত্র নিয়ে নেন। এনিয়ে ওই গৃবধুর শাশুরী, ননদ ও ঝা মিলে তাকে প্রায়ই নির্যাতন করতেন। তাদের নির্যাতনের কারনে তিনি বাবার বাড়ি চলে যেতেন। বিষয়টি গৃহবধুর স্বামী সুরুক মিয়াকেও জানানো হয়।

এদিকে বাবলী আখতারের ঝা রুমা বেগমের সঙ্গে তারই পাশের বাড়ির দেবর তুহিন মিয়ার অবৈধ সম্পর্ক গড়ে উঠে। এ বিষয়টিও দেখে ফেলেন বাবলী আখতার। রুমার সম্পর্ক প্রকাশ পেয়ে যাবে বলেও তাকে (বাবলী) নির্যাতন করতেন রুমা বেগম।

এক সাপ্তাহ আগে বাবলী আখতারের মা জাহানারা বেগম তার বাড়িতে এলে নির্যাতনের বর্ণনা দেয় এবং রুমা বেগম তাকে মেরে ফেলার পরিকল্পনা করছে বলেও সে জানায়। এরপরই গত শুক্রবার সকালে রুমা গেম ফোন দিয়ে জাহানারা বেগমকে জানান, বাবলী আখতার গুরুতর অসুস্থ। তাকে দেখার জন্য। এসে তারা তার লাশ  উঠানে পড়ে থাকতে দেখেন।

এ ঘটনায় গৃহবধুর দুলাভাই কমলগঞ্জ উপজেলার বড়চেক গ্রামের হারুন মিয়া বাদি হয়ে ৬ জনের নাম উল্লেখসহ ১০ জনকেত আসামী করে মামলা করেন। পুলিশ ৫জনকে গ্রেপ্তার করেছে। গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন ঝা রুমা বেগম (৩০), শাশুরী মাখন বিবি (৫৫), ননদ মিলন বেগম (৩৫), তুহিন মিয়া (৩১) ও লেছু মিয়া (৫০)।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা রাজনগর থানার উপপরির্দশক (এসআই) আলাউদ্দীন বলেন, এজহারনামীয় ৫জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। আসামীদের ১০ দিনের রিমান্ড আবেদন করা হয়েছে।

আপনার মন্তব্য

আলোচিত