আজ সোমবার, , ২৩ অক্টোবর ২০১৭ ইং

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি

১১ আগস্ট, ২০১৭ ১৪:৫১

ভারী বর্ষণ ও পাহাড়ি ঢলে সুনামগঞ্জে ফের বন্যার আশঙ্কা

ফাইল ছবি

ভারী বর্ষণ ও পাহাড়ি ঢলের ফলে সুনামগঞ্জে ফের বন্যার আশঙ্কা দেখা দিয়েছে। ইতোমধ্যে সুনামগঞ্জে সুরমা নদীর পানি বিপদসীমার ৪২ সে.মি. ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। জেলার অনেক নিম্নাঞ্চল ইতোমধ্যে প্লাবিত হয়ে গেছে। হাওর এলাকার বাড়ছে পানি।

গত এপ্রিলের শুরুতে পাহাড়ি ঢলে সুনামগঞ্জের হাোর এলাকায় অকাল বন্যা দেখা দেয়। এতে তলিয়ে যায় হাওরের বোরো ফসল। সেই দখল কাটিয়ে না উঠতেই আবার সুনামগঞ্জে বন্যা পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে।

কয়েকদিনের বৃষ্টি ও ঢলের পানিতে জেলার বিশ্বম্ভরপুর, তাহিরপুর ও দোয়ারাবাজার উপজেলার নিম্নাঞ্চল প্লাবিত হয়েছে। বৃষ্টিপাত অব্যাহত থাকায় এসব এলাকায় বাড়ছে পানি । বন্যার কারণে এসব এলাকার মানুষদের পোহাতে হচ্ছে চরম দুর্ভোগ ।

এদিকে আকষ্মিক পাহাড়ি ঢলে তাহিরপুর সুনামগঞ্জ সড়কের শখতিয়ারখোলা এলাকায় পানির নিচে ডুবে যাওয়ায় সিলেটের সঙ্গে সড়ক যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন রয়েছে। এছাড়া ফতেহপুর-সুনামগঞ্জ সড়কের বেশ কয়েকটি অংশে পানি উঠে গেছে।

বিশম্ভরপুর উপজেলা সদরের নিম্নাঞ্জল ঢলের পানি প্রবেশ করেছে। পাহাড়ি ঢলে উপজেলার কিছু এলাকা প্লাবিত হয়েছে।

ফতেহপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান রনজিৎ চৌধুরী রাজন জানান, তার ইউনিয়নের দু-একটি গ্রামে বেশ কিছু নিচু এলাকায় বন্যার পানি প্রবেশে করেছে।

সুনামগঞ্জ পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী আবু সিদ্দিকুর রহমান জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় শুক্রবার সকাল ৬টায় ১২৫ মিলিমিটার গড় বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছে।

তিনি আরো জানান, সিলেটের উজানে অমলিসদে পানির চাপ রয়েছে। এ পানি নামলে সুনামগঞ্জে বন্যা দেখা দিতে পারে। তবে বিপদসীমার ৪৭ সেন্টিমিটার সুনামগঞ্জে সামগ্রীভাবে বন্যা ধরা না হলেও নদীর তীরবর্তী গ্রামগুলো প্লাবিত হতে পারে বলে জানান তিনি।

সুনামগঞ্জের জেলা প্রশাসক (ডিসি) মো. সাবিরুল ইসলাম জানান, জেলার ১১টি উপজেলা ইউএনওদের সতর্ক থাকার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে। বন্যার ব্যাপারে জেলা প্রশাসন সজাগ রয়েছে বলেও জানান তিনি।

আপনার মন্তব্য

আলোচিত