আজ বৃহস্পতিবার, , ১৪ ডিসেম্বর ২০১৭ ইং

সিলেটটুডে ডেস্ক

১০ অক্টোবর, ২০১৭ ১৬:৪২

আদালতের তলব পেয়ে ফের হকার উচ্ছেদ অভিযানে সিসিক মেয়র

সিলেট নগরীতে অবৈধভাবে দখলকৃত ফুটপাত থেকে হকারদের উচ্ছেদ অভিযান অব্যাহত রেখেছে সিলেট সিটি কর্পোরেশন। এ সময় বিভিন্ন দোকান ও লেগুনা গাড়ির উপর জরিমানা করা হয়।

মঙ্গলবার (১০ অক্টোবর) সকাল ১১টায় নগর ভবনের সামনে থেকে উচ্ছেদ অভিযান শুরু হয়ে নগরীর সুরমা মার্কেট, ক্বিন ব্রিজ, বন্দরবাজার হয়ে জিন্দাবাজার ঘুরে নগর ভবনের সামনে এসে শেষ হয়। এ সময় বিভিন্ন দোকান ও লেগুনা গাড়ির উপর জরিমানা করা হয়।

সিলেট সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরীর নেতৃত্বে পরিচালিত অভিযানে জেলা প্রশাসন, পুলিশ প্রশাসন ও সিলেট চেম্বার অব কমার্স প্রতিনিধিরা অংশ নেন।

জানা যায়, চলতি বছরের ২৫ মে সাত দিনের মধ্যে সিলেট নগরীর ফুটপাত দখল করে গড়ে উঠা বিভিন্ন অবৈধ স্থাপনার নেপথ্যে থাকা নিয়ন্ত্রণকারীদের নাম ও ঠিকানা তদন্ত করে আদালতে প্রতিবেদনের জন্য সিসিক মেয়রকে নির্দেশ দেওয়া হয়। সিলেটের মুখ্য মহানগর হাকিম সাইফুজ্জামান হিরো জনস্বার্থে এ আদেশ জারি করেন।

তবে নির্ধারিত সময়ের মধ্যে আদালতে দখলদারদের তালিকা জমা দিতে পারেননি মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী। এ অবস্থায় গত ৮ জুন তদন্ত প্রতিবেদন দাখিলের জন্য আরও সময় চেয়ে আবেদন করেন মেয়র। আদালত তাকে আরও এক মাসের সময় দেন। কিন্তু, তিনি পরবর্তী ৩ মাসের মধ্যেও তদন্ত প্রতিবেদন দাখিল করেননি তিনি।

এর ফলে গত রোববার এক আদেশে সিলেট মহানগর মুখ্য হাকিম সাইফুজ্জামান হিরো সিসিক মেয়রকে আদালতে হাজির হওয়ার নির্দেশ দেন। ‘কেন তিনি একটি জন-গুরুত্বপূর্ণ বিষয়ে জনপ্রতিনিধি হয়েও আদালতের আদেশ মেনে প্রতিবেদন দাখিল করছেন না’ তার ব্যাখ্যা দিতে আগামী ১৬ অক্টোবর তাকে আদালতে তলব করা হয়। একইসঙ্গে এ ঘটনার সঙ্গে সম্পৃক্ত থাকায় কোতোয়ালি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাকেও একইদিনে আদালতে হাজির হয়ে ব্যাখ্যা দেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়।

আদালতের নির্দেশ পেয়ে মঙ্গলবার ফের ফুটপাত থেকে হকার উচ্ছেদ অভিযান শুরু করে সিসিক।

অভিযান পরিচালনা কালে উপস্থিত ছিলেন সিটি কর্পোরেশনের কাউন্সিলর সৈয়দ তৌফিকুল হাদী, কাউন্সিলর মো. রাজিক মিয়া, কাউন্সিলর ছয়ফুল আমিন বাকের, কাউন্সিলর এবিএম জিল্লুর রহমান উজ্জ্বল, দি সিলেট চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রির সভাপতি খন্দকার শিপার আহমদ, পরিচালক জিয়া উল হক জিয়া, পরিচালক নুরুল ইসলাম, সিটি কর্পোরেশনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. শরিফুজ্জামান, জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটসহ সিটি কর্পোরেশনের কর্মকর্তা-কর্মচারীবৃন্দ।

অভিযান পরিচালনাকালে সিলেট সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী বলেন, নগরীর প্রধান প্রধান সমস্যার মধ্যে একটি হচ্ছে ফুটপাত দখল। এই সমস্যা সমাধানের লক্ষ্যে গুরুত্ব সহকারে কাজ করে যাচ্ছে সিলেট সিটি কর্পোরেশন।

তিনি আরও বলেন, ফুটপাত দখল করে অবৈধভাবে ব্যবসা-বাণিজ্য পরিচালনা করা হচ্ছে। যার কারণে ফুটপাত দিয়ে চলাচল করতে নগরবাসীদের পড়তে হচ্ছে নানা বিড়ম্বনায়। বিঘ্নিত হচ্ছে জনগণের সার্বিক নিরাপত্তা। তাই নগরীর জনগণের স্বার্থে ফুটপাত অবৈধ দখলদার মুক্ত করতে সহযোগিতা করার আহবান জানান মেয়র।

আপনার মন্তব্য

আলোচিত