আজ সোমবার, , ২০ নভেম্বর ২০১৭ ইং

মৌলভীবাজার প্রতিনিধি

১৯ অক্টোবর, ২০১৭ ১৯:৫৩

কুয়েতে নিহত পাঁচ বাংলাদেশির মরদেহ কমলগঞ্জে

কুয়েতে নিহত একই পরিবারের পাঁচ বাংলাদেশির মরদেহ বৃহস্পতিবার (১৯ অক্টোবর)সন্ধ্যায় তাদের গ্রামের বাড়িতে পৌঁছেছে। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা সাড়ে ৫টার দিকে লাশবাহী অ্যাম্বুলেন্সগুলো মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জের কান্দিগাঁও গ্রামে এসে পৌঁছেছে।

কুয়েতের সালমিয়াতে এসি বিস্ফোরণের কারণে নিহত পাঁচ বাংলাদেশি হলেন, জুনায়েদ মিয়ার স্ত্রী রোকেয়া বেগম (৩৪), তার বড় মেয়ে জামিলা আহমদ (১৫), বড় ছেলে ফাহাদ আহমদ (১২), ছোট ছেলে ইমাদ আহমদ (৯) ও ছোট মেয়ে নাবিলা আহমদ (৫)।

বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ৮টায় লাশগুলো নিয়ে কুয়েত এয়ারলাইন্সের একটি ফ্লাইট হযরত শাহজালাল (রা.)আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে পৌঁছায়। এসময় সাবেক চিফ হুইপ আলহাজ উপাধ্যক্ষ আব্দুস শহীদ এমপি বিমানবন্দরে উপস্থিত হয়ে মরদেহগুলো গ্রহণ করেন।

এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ জাতীয় সংসদের হুইপ মো.শাহাব উদ্দীন এমপি, বাংলাদেশ প্রবাসী ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রাণালয়ের পরিচালক (অর্থ) মো. শফিকুর রহমান, সহকারী পরিচারক মোস্তাফিজুর রহমান প্রমুখ।

বিমানবন্দরের আনুষ্ঠানিকতা শেষে সকাল ১০টার দিকে লাশবাহী অম্বুলেন্সগুলো কমলগঞ্জের কান্দিগাঁও গ্রামের বাড়ির উদ্দেশে রওনা দেয়।

রাত সাড়ে ৮টায় কমলগঞ্জ উপজেলার সফাত আলী সিনিয়র ফাজিল মাদ্রাসা মাঠে নিহতদের জানাজার নামাজ  অনুষ্ঠিত হবে।

বুধবার কুয়েত সময় রাত ১২টার দিকে জুনায়েদ মিয়া কুয়েত এয়ারলাইন্সের একটি ফ্লাইটে স্ত্রী-সন্তানদের মরদেহ নিয়ে রওয়ানা দেন।

প্রসঙ্গত, সোমবার (১৬ অক্টোবর) স্থানীয় সময় দুপুরে কুয়েতের সালমিয়াত এলাকার ভাড়া বাসায় এসি বিস্ফোরণে শ্বাসরুদ্ধ হয়ে জুনায়েদ মিয়ার স্ত্রী-সন্তানরা মারা যান।

আপনার মন্তব্য

আলোচিত