আজ বৃহস্পতিবার, , ১৪ ডিসেম্বর ২০১৭ ইং

সোশ্যাল মিডিয়া ডেস্ক

১৬ ডিসেম্বর, ২০১৬ ২৩:২১

জার্মান ক্লাব বরুশিয়ার বিজয় শুভেচ্ছা, ফেসবুকে উচ্ছ্বাস

জার্মান ক্লাব ফুটবল চ্যাম্পিয়নশিপ বুন্দেসলিগায় কালো-হলুদের দল খ্যাত বরুশিয়া ডর্টমুন্ড তাদের অফিসিয়াল ফেসবুক পেজে বাংলাদেশের মহান বিজয় দিবসে শুভেচ্ছা জানিয়েছে।

শুক্রবার (১৬ ডিসেম্বর) ক্লাবটি তাদের ফেসবুকে বাংলাদেশের বিজয়ের শুভেচ্ছা জানিয়ে পোস্ট করার পর থেকে বাংলাদেশের ফেসবুক ব্যবহারকারীদের মধ্যে ব্যাপক সাড়া পড়েছে। বরুশিয়া ডর্টমুন্ডের দেওয়া ছবি পোস্টে হাজার হাজার বাঙালি ফেসবুকার লাইক, কমেন্ট ও শেয়ার করে পোস্টটি ভাইরাল করেছেন।

ক্লাবটির পতাকাশোভিত ওই পোস্টে ভুল বানানে শুভেচ্ছা জানানো হলেও "celebrating this special day" হিসেবে বাংলাদেশের পতাকার ছবি শোভা পাচ্ছে।

এদিকে, ভুল বানানের শুভেচ্ছা হলেও বাংলাদেশের ফেসবুক ব্যবহারকারীরা একে ইতিবাচক হিসেবে দেখছেন। এই বানানের বিষয়টিকে অনেকেই গুগল ট্রান্সলেটের সীমাবদ্ধতা হিসেবে উল্লেখ করে ক্লাবটির প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়েছেন।

এ প্রসঙ্গে ইরফানুল আরেফিন নামক একজন কমেন্টে লিখেন, "তারা অভিনন্দন জানানোর চেষ্টা করসে এটাই অনেক। তারা তো আর বাংলা জানেনা যে ঠিকভাবে লেখত।" আরেফিনের কমেন্টে অন্য একজন লিখেন, ভুল না ধরে এপ্রিসিয়েট করেন ওদের ইচ্ছাটাকে। আর যদি বেশি কিছু বলার থাকে গুগল ট্রান্সলেটরকে রিপোর্ট করেন।

এদিকে, বরুশিয়া ডর্টমুন্ড ক্লাবের এ ফেসবুক পোস্টে ফেসবুকে কেবল ভাইরালই নয়, পোস্টটির নিচে হাজার-হাজার কমেন্ট পড়েছে যাদের অধিকাংশই বাংলাদেশি বাঙালি। অনেকে ইংরেজিতে ক্লাবটিকে ধন্যবাদ জানাচ্ছেন, আবার কেউ কেউ বাংলায় জানাচ্ছেন কৃতজ্ঞতা।

উল্লেখ্য, বালস্পিলফেরাইন বোরুশিয়া ০৯ এ.ফাউ. ডর্টমুন্ড (জার্মান: 'Ballspielverein Borussia 09 e.V. Dortmund'), সাধারণত যেটিকে বোরুশিয়া ডর্টমুন্ড অথবা সংক্ষেপে বিভিবি (বেফাউবে) অথবা ডর্টমুন্ড ডাকা হয়, জার্মানির নর্ডরাইন-ভেস্টফালিয়ার ডর্টমুন্ড শহরকেন্দ্রিক একটি পেশাদার ফুটবল দল। উইকির তথ্য অনুসারে, এটি একটি বিশাল সদস্যভিত্তিক ক্রীড়া দল যার মোট সদস্য সংখ্যা বর্তমানে প্রায় ১,১৫,০০০ জন।

১৯০৯ সালে বোরুশিয়া ডর্টমুন্ড ক্লাবটি মাত্র ১৮ জন ফুটবল খেলোয়াড় নিয়ে গঠিত হয়। বোরুশিয়া ডর্টমুন্ড এ পর্যন্ত ৮ টি জার্মান চ্যাম্পিয়নশিপ, ৩ টি ডিএফবি পোকাল, ৫ টি ডিএফএল কাপ, ১ টি উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লীগ, ১ টি উয়েফা কাপ উইনারস্ কাপ এবং ১ টি ইন্টারকন্টিনেন্টাল কাপ অর্জন করেছে। ১৯৬৬ সালে ক্লাবটি ইউয়েফা কাপ উইনারস্ কাপ জেতার কৃতিত্ব দেখায়। কোন জার্মান ক্লাবের ইউরোপিয়ান শিরোপা জেতার নজির ছিল সেটিই সর্বপ্রথম।

১৯৭৪ সাল থেকে বোরুশিয়া ডর্টমুন্ড তাদের হোম ম্যাচগুলি ভেস্টফালেন স্তাডিওনে খেলে থাকে। স্টেডিয়ামটি ধারণক্ষমতার দিক দিয়ে পুরো জার্মানির মধ্যে সবচেয়ে বড়। ক্লাব হিসেবে ডর্টমুন্ডের মাঠের গড় দর্শক উপস্থিতি বিশ্বে সর্বোচ্চ। বোরুশিয়া ডর্টমুন্ডের জার্সির রং কাল এবং হলুদ যে কারণে তাদের সমর্থকেরা তাদের ডাকে ডি শোয়াৎর্জগেলবেন (জার্মান:die Schwarzgelben) বলে, যার অর্থ কালো-হলুদের দল।

আপনার মন্তব্য

আলোচিত